Thursday, July 17, 2014

ফুসফুসে ক্যান্সার ও তার প্রতিকার

আপনারা এবিষয়ে সবাই অবগত, ক্যান্সার একটি জটিল ব্যাধি। ক্যান্সার হচ্ছে শরীরের কোষকলার অস্বাভাবিক বৃদ্ধি ও বিকৃতি। বিজ্ঞানীরা চিকিৎসা বিজ্ঞানে অনেকদূর অগ্রসর হওয়ার দাবি করলেও আজ পর্যন্ত ক্যান্সারের যথাযোগ্য প্রতিষেধক উদ্ভাবন করতে পারেননি। আসলে চিকিৎসা বিজ্ঞানীরা যে সফলতা এত দিন অর্জন করেছেন, তার বেশির ভাগই জীবাণুঘটিত রোগের ক্ষেত্রে।

এন্টিবায়োটিকের কল্যাণে যক্ষ্মসহ যেকোনো জীবাণুঘটিত রোগের নিরাময় মানুষের কাছে এখন খোলামেলা ব্যাপার। কিন্তু যে রোগের জীবাণুই নেই, সেখানে করার কী আছে? এখানেই এত দিন ছিলেন ক্যান্সারের কাছে বড়ই নিরুপায় চিকিৎসা বিজ্ঞানীরা।
ফুসফুসে ক্যান্সার ও তার প্রতিকার
তবে ইদানীং ফুসফুসের ক্যান্সার চিকিৎসায় নাটকীয় সাফল্য অর্জিত হয়েছে। ফুসফুসের ক্যান্সার কয়েক ধরনের হয়ে থাকে। তবে চিকিৎসার সুবিধার জন্য ফুসফুসের ক্যান্সারকে স্মলসেল কারসিনোমা এবং নন-স্মলসেল কারসিনোমা এই দুই ভাগে ভাগ করা হয়েছে। স্মলসেল কারসিনোমা চিকিৎসায় খরচ বেশ কম। ক্যাম্পটো নামক ওষুধ দিয়ে বর্তমানে এর চিকিৎসায় বেশ ফল পাওয়া যাবে। নন-স্মলসেল কারসিনোমা চিকিৎসায় বর্তমানে ব্যবহার করা হচ্ছে টেক্সোটিয়ার নামক ওষুধটি। তবে এর সমস্যা হলো ওষুধটি বেশ দামি।

বেশির ভাগ রোগীর পক্ষে এত টাকা জোগাড় করা কষ্টকর। তবে টেক্সোটিয়াম দিয়ে চিকিৎসায় সাফল্য পাওয়া যাচ্ছে। বর্তমানে ক্যান্সার নিরাময়ে কেমোথেরাপি এবং বিকিরণ চিকিৎসার প্রচলন রয়েছে। এ ধারায় চিকিৎসায় রোগীর খারাপ কোষের সাথে সাথে ভালো কোষও মরে যায়। কিন্তু নতুন চিকিৎসায় শুধু ক্যান্সার-আক্রান্ত টিস্যুই লক্ষ্যবস্তু হবে। অর্থাৎ কেবল খারাপ কোষই মারা পড়বে, ভালো কোষের কোনো ক্ষতি হবে না। তবে তার চেয়েও আরো ভালো চিকিৎসা হলো হোমিওপ্যাথি। এই চিকিৎসা পার্শ্বপ্রতিক্রিয়াহীন এবং অধিক সফল।

ফুসফুসের ক্যান্সার প্রতিরোধযোগ্য একটি রোগ। কারণ ধূমপান পরিহার করলে ফুসফুসে ক্যান্সার হওয়ার ঝুঁকি অনেক কমে যায়। যে যত বেশি মাত্রায় এবং বেশি দিন ধরে ধূমপান করবেন তার এই রোগে আক্রান্ত হওয়ার আশঙ্কা তত বেশি বাড়িয়ে দেয়, যেমন সিগারেটের ধোঁয়া নিঃশ্বাসের সাথে ভেতরে নেয়া, একটি সিগারেটকে বারবার টানতে থাকা, জ্বলন্ত সিগারেটটি হাতের আঙুলের ফাঁকে না রেখে ঠোঁটের মধ্যে রেখে নিঃশ্বাস গ্রহণ করা, নেভানো সিগারেট আবার জ্বালিয়ে খাওয়া এবং সিগারেট খেতে খেতে একেবারে শেষ পর্যন্ত টেনে খাওয়া ইত্যাদি।

পরিবেশ দূষণ বন্ধ করতে পারলে এবং ধূমপানের কু-অভ্যাস বন্ধ করতে পারলে একটি লোক অনায়াসেই ফুসফুসের ক্যান্সারের হাত থেকে বেঁচে থাকতে পারবেন।

ফুসফুসে ক্যান্সারে আক্রান্ত হলে অভিজ্ঞ একজন হোমিও চিকিৎসকের পরামর্শক্রমে চিকিৎসা নিন। রোগের প্রথম অবস্থায় চিকিৎসা শুরু করলে ভালো এই রোগ থেকে মুক্তি পাওয়ার সম্ভবনা থাকে অনেক বেশি।

ফুসফুসে ক্যান্সার ও তার প্রতিকার ডাক্তার আবুল হাসান 5 of 5
আপনারা এবিষয়ে সবাই অবগত, ক্যান্সার একটি জটিল ব্যাধি। ক্যান্সার হচ্ছে শরীরের কোষকলার অস্বাভাবিক বৃদ্ধি ও বিকৃতি। বিজ্ঞানীরা চিকিৎসা বিজ্ঞানে...

ডাক্তার আবুল হাসান (ডিএইচএমএস - বিএইচএমসি, ঢাকা)

বাংলাদেশ হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজ, ঢাকা

যৌন ও স্ত্রীরোগ, চর্মরোগ, কিডনি রোগ, হেপাটাইটিস, লিভার ক্যান্সার, লিভার সিরোসিস, পাইলস, IBS, পুরাতন আমাশয়সহ সকল ক্রনিক রোগে হোমিও চিকিৎসা নিন।

১০৬ দক্ষিন যাত্রাবাড়ী, শহীদ ফারুক রোড, ঢাকা ১২০৪, বাংলাদেশ
ফোন :- ০১৭২৭-৩৮২৬৭১ এবং ০১৯২২-৪৩৭৪৩৫
ইমেইল:adhunikhomeopathy@gmail.com
স্বাস্থ্য পরামর্শের জন্য যেকোন সময় নির্দিধায় এবং নিঃসংকোচে যোগাযোগ করুন।
পার্শ্ব প্রতিক্রিয়াহীন সর্বাধুনিক ও সফল হোমিওপ্যাথিক চিকিত্সা নিন

কিডনি সমস্যা

  • কিডনি পাথর
  • কিডনি সিস্ট
  • কিডনি ইনফেকশন
  • কিডনি বিকলতা
  • প্রসাবে রক্ত
  • প্রস্রাবের সময় ব্যথা
  • প্রসাব না হওয়া
  • শরীর ফুলে যাওয়া

লিভার সমস্যা

  • ফ্যাটি লিভার
  • লিভার অ্যাবসেস (ফোঁড়া)
  • জন্ডিস
  • ভাইরাল হেপাটাইটিস
  • ক্রনিক হেপাটাইটিস
  • HBsAg (+ve)
  • লিভার সিরোসিস
  • লিভার ক্যানসার

পুরুষের সমস্যা

  • যৌন দুর্বলতা,দ্রুত বীর্যপাত
  • শুক্রতারল্য,ধাতু দৌর্বল্য
  • হস্তমৈথুন অভ্যাস
  • হস্তমৈথনের কুফল
  • অতিরিক্ত স্বপ্নদোষ
  • পুরুষত্বহীনতা, ধ্বজভঙ্গ
  • পুরুষাঙ্গ নিস্তেজ
  • সিফিলিস, গনোরিয়া

স্ত্রীরোগ সমূহ

  • স্তন টিউমার
  • ডিম্বাশয়ে টিউমার
  • ডিম্বাশয়ের সিস্ট
  • জরায়ুতে টিউমার
  • জরায়ু নিচে নেমে আসা
  • অনিয়মিত মাসিক
  • যোনিতে প্রদাহ,বন্ধ্যাত্ব
  • লিউকোরিয়া, স্রাব

পরিপাকতন্ত্রের সমস্যা

  • পেটে গ্যাসের সমস্যা
  • ক্রনিক গ্যাস্ট্রিক আলসার
  • নতুন এবং পুরাতন আমাশয়
  • আইবিএস (IBS)
  • আইবিডি (IBD)
  • তীব্রতর কোষ্ঠকাঠিন্য
  • পাইলস, ফিস্টুলা
  • এনাল ফিসার

অন্যান্য স্বাস্থ্য সমস্যা

  • বাতজ্বর
  • লিউকেমিয়া, থ্যালাসেমিয়া
  • সাইনোসায়টিস
  • এলাৰ্জি
  • মাইগ্রেন
  • অনিদ্রা
  • সোরিয়াসিস (Psoriasis)
  • সাধারণ অসুস্থতা