Saturday, August 23, 2014

জেনে নিন মারাত্মক কিছু রোগের শারীরিক লক্ষণ !

আমাদের শরীরের কিছু কিছু সমস্যা আমরা খুব সহজে নিজেরাই নির্নয় করতে পারি। শরীরের নানান জটিল সমস্যার কারণে আমাদেরই কিছু অঙ্গে তার প্রভাব পড়তে শুরু করে আগে থেকেই। আপাত দৃষ্টিতে দুটি সমস্যার কোনো মিল খুঁজে পাওয়া না গেলেও শরীরের অভ্যন্তরীণ সংযোগ আছে সমস্যাগুলোর মধ্যে। তেমনই কিছু শারীরিক সমস্যা সম্পর্কে জেনে নিন যেগুলো হতে পারে অন্য কোনো রোগের কারণ।
বয়সের ছাপ ও হৃদপিন্ড :-
বয়সের ছাপ এর সাথে আছে হৃদপিন্ডের সম্পর্ক। কোপেনহেগেন ইউনিভার্সিটি হসপিটালের গবেষকদের গবেষণায় জানা গিয়েছে যে যাদের বয়সের আগেই চুল পেকে যায়, ত্বকে দ্রুত বলিরেখা পরে, মাথায় টাক পরে যায় এবং চোখের নিচে ভাজ পরে যায় তাদের হৃদপিন্ডের সমস্যা থাকার ঝুঁকি আছে। এই সমস্যাগুলো যাদের মাঝে লক্ষ্য করা যায় তাদের ৩৫ বছর বয়সের পরে হৃদপিন্ডের অসুখে ভোগার সম্ভাবনা ৪০% বেশি এবং হার্ট অ্যাটাকে ঝুঁকি ৫৭% বেশি। 

লালচে চোখ ও মস্তিষ্ক :-
শুনতে খুবই অদ্ভুত শোনালেও সত্যি যে চোখের সাথে মস্তিষ্কের সম্পর্ক আছে। কিন্তু একটি গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে ৩৮ বছরের কম অংশগ্রহণকারীদের যাদের চোখের রক্তনালী চওড়া তাদের আইকিউ তুলনামূলক ভাবে কম। এক্ষেত্রে চোখের রক্তনালী সরু তাদের আই কিউ বেশি। এক্ষেত্রে গবেষকরা জানিয়েছেন যে চোখের রক্তনালীর আকৃতি আর মস্তিষ্কের রক্তনালীর আকৃতি একই ধরণের হয়। তাই চোখ থেকেই মতিষ্কের অবস্থা অনেকটাই বোঝা যায়। তাই মস্তিষ্কে কোনো সমস্যা হয়েছে কিনা তা চোখ দেখেই অনেকটাই আন্দাজ করা যায়। 

মুখের দূর্গন্ধ ও ইরেকটাইল ডিসফাংশন :-
মাড়ির সমস্যা ও মুখের দূর্গন্ধের সাথে ইরেকটাইল ডিসফাংশন এর সম্পর্ক আছে। তুরস্কের একজন গবেষক ৩০ থেকে ৪০ বছর বয়সী পুরুষদের উপর গবেষণা চালিয়ে দেখেছেন যে যাদের মাড়ির সমস্যা ছিলো তারা অন্যান্য পুরুষদের তুলনায় ইরেকটাইল ডিসফাংশন সমস্যায় তিনগুন বেশি ভোগে। 

ঘ্রাণ ও আলঝেইমার :-
ইউএস ন্যাশনাল ইন্সটিটিউট অফ নিউরোলোজিক্যাল ডিসঅর্ডারস এর একটি গবেষণায় দেখা গিয়েছে যে যাদের ঘ্রাণশক্তি তুলনামূলকভাবে অন্যদের চাইতে কম তাদের আলঝেইমার রোগে ভোগার সম্ভাবনা অনেক বেশি।

চুল পড়া ও হরমোন :-
আপনার যদি হঠাৎ করেই অতিরিক্ত চুল পড়া শুরু করে কিংবা চুলের বৃদ্ধি একদম কমে যায় তাহলে আপনার হরমোনের সমস্যা থাকতে পারে। কারণ থাইরোয়েড ও অন্য কিছু জরুরি হরমোনজনিত সমস্যা থাকলে তার প্রভাব চুলে পরার সম্ভাবনা থাকে।

যদি আপনার দ্বারা সঠিক লক্ষণটি নিরুপন করা সম্ভব হয় অথবা না হয় যে কোনো অবস্থায় মনে কোনো প্রকার সন্দেহের উদ্রেক হলে আপনার হোমিওপ্যাথের পরামর্শ নিন। আর যদি এ রকম কোনো রোগে আক্রান্ত হয়ে থাকেন তাহলে কাল বিলম্ব না করে হোমিওপ্যাথি চিকিত্সা শুরু করুন। কারণ আপনি হয়ত অবগত আছেন যে - সৃষ্টি লগ্ন থেকেই হোমিওপ্যাথি মারাত্মক সব রোগের সাথে লড়ে যাচ্ছে, যেখানে অন্য কোন চিকিত্সা বিদ্যা খুব কমই সাফল্য দেখাতে পেরেছে।
********   আধুনিক হোমিওপ্যাথি     ********
১০৬ দক্ষিন যাত্রাবাড়ী, শহীদ ফারুক রোড, ঢাকা ১২০৪
 ফোন: ০১৭২৭-৩৮২৬৭১, ০১৯২২-৪৩৭৪৩৫

জেনে নিন মারাত্মক কিছু রোগের শারীরিক লক্ষণ ! ডাক্তার আবুল হাসান 5 of 5
আমাদের শরীরের কিছু কিছু সমস্যা আমরা খুব সহজে নিজেরাই নির্নয় করতে পারি। শরীরের নানান জটিল সমস্যার কারণে আমাদেরই কিছু অঙ্গে তার প্রভাব পড়তে...

ডাক্তার আবুল হাসান (ডিএইচএমএস - বিএইচএমসি, ঢাকা)

বাংলাদেশ হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজ, ঢাকা
যৌন ও স্ত্রীরোগ, লিভার, কিডনি ও পাইলসরোগ বিশেষজ্ঞ হোমিওপ্যাথ
১০৬ দক্ষিন যাত্রাবাড়ী, শহীদ ফারুক রোড, ঢাকা ১২০৪, বাংলাদেশ
ফোন :- ০১৭২৭-৩৮২৬৭১ এবং ০১৯২২-৪৩৭৪৩৫
ইমেইল:adhunikhomeopathy@gmail.com
স্বাস্থ্য পরামর্শের জন্য যেকোন সময় নির্দিধায় এবং নিঃসংকোচে যোগাযোগ করুন।