Thursday, July 12, 2018

হোমিওপ্যাথি কি দ্রুত কাজ করে না আস্তে আস্তে কাজ করে ?

দেখা গেছে, অধিকাংশ সময় মানুষ তাদের রোগ নিয়ে হোমিও চিকিৎসকের নিকট আসেন একেবারে শেষ পর্যায়ে যখন এলোপ্যাথি বা অন্য কোথাও এর কোন চিকিৎসা পাওয়া যায় না। অথবা শেষ চেষ্টা হিসেবে হোমিও চিকিৎসা নিতে আসেন। অথচ সেই চিকিৎসাতেই অধিকাংশ রোগী নির্মল আরোগ্য লাভ করে থাকেন। বিষয়টি চিন্তা করুন, বহু সময় ধরে একটি রোগে ভুগে বহু চিকিৎসা নিয়ে যখন বিফল হচ্ছে তখনই তারা হোমিও ডাক্তারের স্মরণাপন্ন হন। এই অবস্থায় বহু বছরের পুরাতন দুরারোগ্য রোগকে মূল থেকে নির্মূল করা কি কয়েক দিনের চিকিৎসার বিষয় নাকি কয়েক মাসের  - বিষয়টি ভেবে দেখবেন? 

এটাকে আপনি নিশ্চয় ধীরে কাজ করছে বলবেন না। কারণ ঔষধ সে সময় থেকেই তার কাজ শুরু করে যখন থেকে আপনি সেটা খাচ্ছেন। আপনার রোগ যদি তরুণ হয় তাহলে আপনি দ্রুত সেরে উঠবেন আর রোগ যদি ক্রনিক বা দুরারোগ্য হয় তাহলে সেটাকে মূল থেকে নির্মূল করতে কিছুটা সময় লাগবে সেটা যে কেউ বুঝে থাকেন। কিন্তু হোমিও ডাক্তারদের কাছে লোকজন মূলত বছরের পর বছর ভুগতে থাকা ক্রনিক বা দুরারোগ্য রোগ নিয়েই বেশি আসেন। যেগুলো দূর করতে কিছুটা সময়লাগবে এটাই স্বাভাবিক। অথচ শুধু মাত্র এই কারণেই মানুষের মধ্যে একটা ধারণা হয়ে গেছে হোমিওপ্যাথি আস্তে আস্তে কাজ করে। 
হোমিওপ্যাথি কি দ্রুত কাজ করে না আস্তে আস্তে কাজ করে ?
একটা বিষয় চিন্তা করুন - জরায়ুর ক্যান্সার আক্রান্ত এক মহিলাকে হাসপাতাল থেকে লাল কার্ড দিয়ে বের করে দিচ্ছে আর বলছে তিন মাসের বেশি বাঁচবে না। দেখা গেছে কোন এক হোমিও চিকিৎসকের চিকিৎসায় তিনি পুরুপুরি সুস্থ হয়ে উঠেছেন যার কিনা তিন মাস পরই মারা যাওয়ার কথা ছিল ! এক্ষেত্রে আপনি একটু ভাবুন তো - হোমিও ঔষধ যদি প্রয়োগ করার সাথে সাথেই কাজ না করতো বা সময় নিতো তাহলে তিন মাসের রোগীর তো বাঁচার কথাই নয়। তবে এটা আপনাকে মনে রাখতে হবে যে, কোন ক্রনিক বা দুরারোগ্য রোগ থেকে রেহাই পেতে হলে আপনাকে কিছু সময় নিয়ে ট্রিটমেন্ট নিতে হবে। অর্থাৎ রোগের তীব্রতা এবং পরিধি যেরকম সেটাকে দূর করতে চিকিৎসার পরিধিও আপনাকে বাড়াতে হবে। একেক রোগের ক্ষেত্রে একেক পরিসংখ্যান। যেমন  -
  • একুইট রোগ
  • ক্রনিক রোগ
  • সার্জিক্যাল রোগ
  • আঘাত জনিত রোগ
  • দুরারোগ্য রোগ
এদের প্রত্যেকের আলাদা আলাদা বৈশিষ্ট্য রয়েছে, তাই প্রত্যেকের স্বতন্ত্র আলোচনা করা হলো।

একুইট রোগ: একুইট রোগ নির্দিষ্ট সময়ের জন্য আবির্ভূত হয়। এ সময়ের মধ্যে রোগীকে মারে, না হয় রোগ মরে। যেমন হঠাত আক্রান্ত জ্বর, ডাইরিয়া, বসন্ত ইত্যাদি। এ সমস্ত রোগে আক্রান্ত রোগীকে আরাম দেয়াই ডাক্তারের প্রথম কাজ। প্রায় সর্বপ্রকার প্যাথিতে এর ভালো চিকিৎসা আছে। হোমিওপ্যাথি চিকিৎসায় দ্রুত ভালো হয় ও এর কোন কুফল বর্তমান থাকেনা।

ক্রনিক রোগ: প্রচলিত চিকিৎসা ব্যবস্থায় যে রোগের জন্য ঔষধ সেবন করা অবস্থায়, রোগী আরাম পায় কিন্তু ঔষধ সেবন না করলে রোগী অসুস্থ থাকে, তাকে ক্রনিক রোগ বলে। যেমন বাত জ্বর, গেটে বাত, সায়েটিকা বাত, পুরাতন মাথা ব্যথা, একজিমা ইত্যাদি।

এরূপ ক্রনিক রোগে আক্রান্ত ১০ জন রোগী হোমিওপ্যাথিতে চিকিৎসা নিলে ৬ থেকে ৮ জন রোগী মৌলিক ভাবে সম্পূর্ণ রূপে আরোগ্য হয়। এবং হাই প্রেশার, সোরিয়েসিস এর মতো অতি জটিল রোগের জন্য ১০ জন রোগী চিকিৎসা নিলে ৩ থেকে ৫ জন রোগী মৌলিক ভাবে সম্পূর্ণ রূপে আরোগ্য হয়। এবং তার কোন পার্শ্বপ্রতিক্রিয়া থাকেনা।
উল্লেখ্য যে, ১০ বৎসর ধরে ভোগতে থাকা একটি ক্রনিক রোগ, হোমিওপ্যাথিতে মৌলিক ভাবে সম্পূর্ণ রূপে আরোগ্য করতে, ১ থেকে ১.৫ বৎসর সময় লাগা যুক্তি সঙ্গত ও বিজ্ঞান সম্মত। যা অন্যান্য চিকিৎসা পদ্ধতিতে রোগীকে আরাম দিতে পারে এবং বছরের পর বছর ঔষধ খায়িয়ে রোগ লালন করতে পারে কিন্তু সুস্থ করতে পারেনা।
হোমিওপ্যাথি ক্রনিক রোগকে ভালো করে, অন্যরা লালন করে, আর বছরের বছর ধরে আপনার পকেটের থাকা তাদের পকেটে নিতে থাকে। এ ক্ষেত্রে লাভবান হয় - ডাক্তার, ওষুধ কোম্পানি, ডায়াগনোস্টিক সেন্টার। মাঝ থেকে আপনি বোকাই হয়ে গেলেন। তাই বলব  আপনারা যেকোন ক্রনিক রোগে হোমিওপ্যাথি চিকিৎসা নিন। ধন্যবাদ। 

হোমিওপ্যাথি কি দ্রুত কাজ করে না আস্তে আস্তে কাজ করে ? ডাক্তার আবুল হাসান 5 of 5
দেখা গেছে, অধিকাংশ সময় মানুষ তাদের রোগ নিয়ে হোমিও চিকিৎসকের নিকট আসেন একেবারে শেষ পর্যায়ে যখন এলোপ্যাথি বা অন্য কোথাও এর কোন চিকিৎসা পাওয়া...

ডাঃ হাসান (ডিএইচএমএস, পিডিটি - বিএইচএমসি, ঢাকা)

বাংলাদেশ হোমিওপ্যাথিক মেডিকেল কলেজ, ঢাকা

যৌন ও স্ত্রীরোগ, চর্মরোগ, কিডনি রোগ, হেপাটাইটিস, লিভার ক্যান্সার, লিভার সিরোসিস, পাইলস, IBS, পুরাতন আমাশয়সহ সকল ক্রনিক রোগে হোমিও চিকিৎসা নিন।

১০৬ দক্ষিন যাত্রাবাড়ী, শহীদ ফারুক রোড, ঢাকা ১২০৪, বাংলাদেশ
ফোন :- ০১৭২৭-৩৮২৬৭১ এবং ০১৯২২-৪৩৭৪৩৫
ইমেইল:adhunikhomeopathy@gmail.com
স্বাস্থ্য পরামর্শের জন্য যেকোন সময় নির্দিধায় এবং নিঃসংকোচে যোগাযোগ করুন।
পার্শ্ব প্রতিক্রিয়াহীন সর্বাধুনিক ও সফল হোমিওপ্যাথিক চিকিত্সা নিন

কিডনি সমস্যা

  • কিডনি পাথর
  • কিডনি সিস্ট
  • কিডনি ইনফেকশন
  • কিডনি বিকলতা
  • প্রসাবে রক্ত
  • প্রস্রাবের সময় ব্যথা
  • প্রসাব না হওয়া
  • শরীর ফুলে যাওয়া

লিভার সমস্যা

  • ফ্যাটি লিভার
  • লিভার অ্যাবসেস (ফোঁড়া)
  • জন্ডিস
  • ভাইরাল হেপাটাইটিস
  • ক্রনিক হেপাটাইটিস
  • HBsAg (+ve)
  • লিভার সিরোসিস
  • লিভার ক্যানসার

পুরুষের সমস্যা

  • যৌন দুর্বলতা,দ্রুত বীর্যপাত
  • শুক্রতারল্য,ধাতু দৌর্বল্য
  • হস্তমৈথুন অভ্যাস
  • হস্তমৈথনের কুফল
  • অতিরিক্ত স্বপ্নদোষ
  • পুরুষত্বহীনতা, ধ্বজভঙ্গ
  • পুরুষাঙ্গ নিস্তেজ
  • সিফিলিস, গনোরিয়া

স্ত্রীরোগ সমূহ

  • স্তন টিউমার
  • ডিম্বাশয়ে টিউমার
  • ডিম্বাশয়ের সিস্ট
  • জরায়ুতে টিউমার
  • জরায়ু নিচে নেমে আসা
  • অনিয়মিত মাসিক
  • যোনিতে প্রদাহ,বন্ধ্যাত্ব
  • লিউকোরিয়া, স্রাব

পরিপাকতন্ত্রের সমস্যা

  • পেটে গ্যাসের সমস্যা
  • ক্রনিক গ্যাস্ট্রিক আলসার
  • নতুন এবং পুরাতন আমাশয়
  • আইবিএস (IBS)
  • আইবিডি (IBD)
  • তীব্রতর কোষ্ঠকাঠিন্য
  • পাইলস, ফিস্টুলা
  • এনাল ফিসার

অন্যান্য স্বাস্থ্য সমস্যা

  • বাতজ্বর
  • লিউকেমিয়া, থ্যালাসেমিয়া
  • সাইনোসায়টিস
  • এলাৰ্জি
  • মাইগ্রেন
  • অনিদ্রা
  • সোরিয়াসিস (Psoriasis)
  • সাধারণ অসুস্থতা